সংস্করণ
Bangla

৮২ বছরের রিভলভার দাদি পাল্টে দিয়েছেন গ্রামের মেয়েদের

YS Bengali
15th Oct 2016
Add to
Shares
8
Comments
Share This
Add to
Shares
8
Comments
Share

বয়সে কী আসে যায়! মানুষের বয়স যে নিতান্ত একটি সংখ্যা মাত্র তা হাতেনাতে প্রমাণ করে দিয়েছেন ৮২ বছরের মহিলা চান্দ্র তোমার। চান্দ্রকে আদর করে গ্রামের মানুষ ডাকেন রিভলভার দাদি নামে। হ্যাঁ, এই সম্বোধনেরই উপযুক্ত চান্দ্র। ইনি বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বয়সী শার্প শুটার। ইতিমধ্যে ২৫বার জাতীয় প্রতিযোগিতায় পুরস্কৃত হয়েছেন।

image


উত্তরপ্রদেশের বাগপাট জেলার জোহরি গ্রামে রিভলভার দাদির ঘরসংসার। ছয় সন্তানের মা তিনি। নাতিনাতনির সংখ্যা পনের। গ্রামের কাছেই জোহরি রাইফেল ক্লাবের সদস্যা হতে চেয়েছিল তাঁরই এক নাতনি। তা নাতনির সঙ্গে দিদাও সেখানে সদস্যা হতে হাজির হন। চান্দ্রর বয়স তখন ৬৫ বছর। এরপরেই চান্দ্র একের পর এক সাফল্য লাভ করেছেন।

সদস্যা হওয়ার পরেপরেই তিনি হাতে একটি পিস্তল তুলে নিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন। তাঁর দক্ষতা দেখে তখনই সকলে অবাক হয়েছিলেন। এরপরে তাঁকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি। চান্দ্র বলেছেন, পিস্তল হাতে নেওয়ার পরেই ভাল লেগেছিল। বয়সটা কোনওই বাধা নয়। তাঁর উপদেশ, যে কোনও কাজ একাগ্রভাবে করাটাই হল সাফল্যের আসল রহস্য।

রিভলভার দাদিকে দেখে এখন গ্রামের অনেক মেয়েই প্রেরণা পাচ্ছেন। খেলাধুলোর ক্ষেত্রে গ্রামে বিপ্লব ঘটিয়েছেন তিনি। বর্তমানে গ্রামের ২৫ জন মেয়ে মান্ধাতার ধারণা থেকে বেরিয়ে এসে রাইফেল ক্লাবে প্রশিক্ষিত হয়েছেন।

পাশাপাশি নিজের পরিবারেও একরকম বিপ্লব ঘটিয়েছেন চান্দ্র। ২০১০ সালে তাঁর মেয়ে সীমা রাইফেল অ্যান্ড পিস্তল ওয়ার্ল্ড কাপে মেডেল লাভ করেছেন। আর নাতনি নীতু সোলাঙ্কি অংশ নিয়েছেন হাঙ্গেরি ও জার্মানিতে আয়োজিত আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায়। 

৮২ বছরের চান্দ্রর বউদি ৭৭ বছর বয়সী প্রকাশী তোমারও চান্দ্রর একজন গুণমুগ্ধ অনুসরণকারী। রাইফেল রেঞ্জের প্রশিক্ষক স্পোর্টস অথরিটি অব ইন্ডিয়ার নীতু সিওরান বললেন, প্রকাশী স্থানীয় পুলিশের ডেপুটি সুপারকে লক্ষ্যভেদে একবার পরাস্ত করেছিলেন। বৃদ্ধার হাতে পরাস্ত হওয়ার জেরে পরে ডেপুটি সুপার একটি অনুষ্ঠানে আসতে চাননি। 

Add to
Shares
8
Comments
Share This
Add to
Shares
8
Comments
Share
Report an issue
Authors

Related Tags