সংস্করণ
Bangla

কলকাতার টাইম মেশিন, টাইমস্কেপ

2nd Dec 2015
Add to
Shares
0
Comments
Share This
Add to
Shares
0
Comments
Share

কখনও কি টাইম মেশিনে চেপে ফিরে যেতে চেয়েছেন ব্রিটিশ কলকাতায়? কেমন ছিল ভীড়ে ঠাসা নিউমার্কেট অথবা সদ্য মাথাতোলা সেন্ট পলস ক্যাথির্ডাল। কেমন দেখতে লাগত আপনার চেনা রাইটার্স বিল্ডিং বা ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল? জানতে চান ঐতিহ্যের ওই সব প্রাচীন স্থাপত্যের আড়ালের কাহিনি। আপনার এই গোপন ইচ্ছাপূরণ করতে চলেছে নতুন মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন “টাইমস্কেপ কলকাতা।” অতীতের আয়নায় বর্তমানকে দেখার সুযোগ করে দেবে এই অ্যাপ। আই ও এস এবং অ্যান্ড্রয়েড প্লাটফর্ম উপযোগী এই মোবাইল অ্যাপ।

টাইমস্কেপ কলকাতার  উদ্বোধনমঞ্চে নন্দিনী দাস

টাইমস্কেপ কলকাতার উদ্বোধনমঞ্চে নন্দিনী দাস


কিভাবে কাজ করে “ টাইমস্কেপ কলকাতা” 

এই অ্যাপ্লিকেশনের অন্যতম রূপকার লিভারপুল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোজেক্ট লিডার নন্দিনী দাস। তিনি জানালেন, স্মার্ট ফোনে ডাউনলোড অপশনে গিয়ে ডাউনলোড করুন ফ্রি অ্যাপ্লিকেশন দ্য লেয়ার। তারপর ‘লেয়ার’ এর-সার্চ ফর লেয়ার অপশনে গিয়ে সার্চ করুন টাইমস্কেপ কলকাতা অথবা স্ক্যান করুন টাইমস্কেপ কলকাতার কিউ আর কোড। লোড হলে আপনা থেকেই মোবাইলের জিপিএস ব্যবহার করে জিও কোঅর্ডিনেটসের মাধ্যমে আপনার লোকেশন খুঁজে নেবে অ্যাপলিকেশন। মোবাইলের স্ক্রিনে ফুটে উঠবে আশপাশের ঐতিহাসিক স্থাপত্য আর পুরনো সব ইতিহাসের স্মৃতি বিজড়িত বাড়ি। এছাড়াও সেই সব প্রাচীন দ্রষ্টব্যের সামনে দাঁড়িয়ে মোবাইলের ক্যামেরায় তার ছবি স্ক্যান করলে নিমিষেই আপনার স্মার্ট ফোনে ফুটে উঠবে সে জায়গার একশো বা দেড়শো বছর আগের সব পুরনো ছবি এবং তাকে ঘিরে নানা অজানা কথা।”

অতীতের গ্রেট ইর্স্টান হোটেল

অতীতের গ্রেট ইর্স্টান হোটেল


শুনতে যতটা সোজা লাগুক না কেন আসলে বেশ জটিল ছিল এই প্রকল্প বাস্তবায়িত করা। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়,ইংল্যান্ডের লিভারপুল বিশ্ববিদ্যালয়ের বহু গবেষক, প্রফেসর ও প্রোগ্রামারদের অক্লান্ত পরিশ্রম তাছারাও ব্রিটিশ লাইব্রেরির ভিস্যুয়াল আর্টস বিভাগের চিফ কিউরেটর জন ফালকনারের সঠিক ঐতিহাসিক ছবি নির্বাচনের মিশেলে সম্ভব হয়েছে এই মোবাইল অ্যাপ। ব্রিটিশ লাইব্রেরির সংগ্রহ ছাড়াও ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল, ও দুজন ব্যাক্তিগত সংগ্রাহকের পুরনো কলকাতার

ক্যামেরায় তোলা ছবি ও হাতে আঁকা ছবির সংগ্রহও ঠাঁই পেয়েছে এই অ্যাপে। আপাতত শহরের প্রায় একশো প্রাচীন দ্রস্টব্য স্থান ও স্হাপত্য ইতিহাসের পাতায় ফিরে দেখার সুযোগে করে দিচ্ছে এই টাইমস্কেপ কলকাতা। প্রায় একবছর ধরে চলা এই অ্যাপ তৈরীর প্রকল্পের ব্যায়ভার পুরোটাই বহন করেছে লিভারপুল বিশ্ববিদ্যালয়। তবে এর রুপায়নের গবেষণার কাজটিতে ইউ জি সি ও ব্রিটিশ শিক্ষাসংস্হা ইউ কে আই ই আর আই এর যোগদান রয়েছে।

ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল তৈরীর সময়

ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল তৈরীর সময়


প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণ গবেষক সুজান মুখোপ্যাধ্যায় জানালেন ,”প্রাথমিক ভাবে একশটি স্থাপত্য দিয়ে শুরু হলেও ভবিষ্যতে কলকাতার আরও অনেক স্থাপত্য এই অ্যাপের আওতায় আনা হবে। ” শুধু স্থির চিত্র বা স্টিল ইমেজ নয় এছারাও ভবিষ্যতে অডিও ও ভিডিও ক্লিপিংসও এই অ্যাপে ব্যবহার করার পরিকল্পনা রেয়েছে উদ্যোক্তাদের। প্রযুক্তি আর ইতিহাসের এরকম মেলবন্ধন প্রাচীন ঐতিহ্যকে শুধু গবেষক ও ঐতিহাসিকদের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে এনে দেয়। এইখানেই এই ধরনের মোবাইল অ্যাপের আসল সাফল্য। ইতিহাসের পাতায় লুকিয়ে থাকা তিনশো বছরের প্রাচীন কলকাতার ইতিহাসকে শহরের মানুষ ও পর্যটকদের কাছে নতুন করে মেলে ধরবে এই ’’টাইমস্কেপ কলকাতা।’’

Add to
Shares
0
Comments
Share This
Add to
Shares
0
Comments
Share
Report an issue
Authors

Related Tags