সংস্করণ
Bangla

বিদেশি বিনিয়োগকে দরজা খুলে দিচ্ছেন মোদি

10th Jan 2018
Add to
Shares
9
Comments
Share This
Add to
Shares
9
Comments
Share

দেশের বাজার এবার সপাটে খুলে দিলেন নরেন্দ্র মোদি। আর্থিক সংস্কারের যে চাকাটা ১৯৯১ সালে ঘুরতে শুরু করেছিল এবার সেই বৃত্তটাই সম্পূর্ণ হচ্ছে। ১০ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেটের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী সম্মতি দিয়েছেন সিঙ্গেল ব্র্যান্ড রিটেলে একশ শতাংশ প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ ঢুকবে ভারতে। সে ক্ষেত্রে সরকারি অনুমোদন আর প্রয়োজন হবে না। ভারতের বাজারে আরও অনায়াসে ঢুকে পড়বে বিদেশি রিটেল সংস্থাগুলি। ভালো দিক নিশ্চয়ই আছে। কিন্তু এর শঙ্কার দিকটাও ইতিমধ্যে চর্চার বিষয় হয়েছে। এর ফলে ভারতীয় ব্র্যান্ডগুলির জন্যে প্রতিযোগিতা বাড়বে। শুধু রিটেল বাজার নয় বৈপ্লবিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে শক্তি ক্ষেত্রেও। বিদেশি আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির জন্যে সুখবর দিলেন মোদিজি। ভারতের শক্তি ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করতে এতদিন শেয়ার বাজারের রাস্তা ধরতে হত বিদেশি বিনিয়োগকারীদের। কিন্তু এবার সরাসরি বিনিয়োগে ছাড়পত্র পেয়ে গেল ওই সংস্থাগুলি। ফলে শক্তি ক্ষেত্রে বিদেশি ব্র্যান্ডগুলি চলে আসবে অনায়াসে। পাশাপাশি অসামরিক বিমান পরিবহণে কিংবা রিয়েল এস্টেট ব্যবসায় ব্রোকিংয়ের ক্ষেত্রেও বিনিয়োগের রাস্তা আরও প্রশস্ত করা হল। বিদেশি বিমান সংস্থাগুলি ৪৯ শতাংশ পর্যন্ত লগ্নি করতে পারবে ভারতে। কোনও ক্ষেত্রেই সরকারি অনুমোদনের প্রয়োজন পড়বে না।

image


মোদি সরকার দাবি করছে এর ফলে বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়বে। চাঙ্গা হবে অর্থনীতি। সাধারণ মানুষের আয় বাড়বে। কর্মসংস্থানের সুযোগ বাড়বে। অন্যদিকে বিরোধিতার সুর শোনা যাচ্ছে ব্যাপারীদের গলায়। তাদের একটি অংশ এই সিদ্ধান্তে মোটেই খুশি নয়। স্পষ্ট বক্তব্য এর ফলে ভারতের বাজারে বিদেশি সংস্থাগুলির একাধিপত্য বাড়বে। যাতে ব্যাহত হবে দেশীয় ব্যবসা। একদিকে মেক ইন ইন্ডিয়ার ঢক্কা নিনাদ অন্যদিকে দেশের বাজারে বিদেশি লগ্নিকারীদের আনাগোনায় ব্যাপারীদের বণিক সভাগুলি যে চটেছে তা তাদের বক্তব্যে স্পষ্ট।

Add to
Shares
9
Comments
Share This
Add to
Shares
9
Comments
Share
Report an issue
Authors

Related Tags