সংস্করণ
Bangla

পিংলায় স্ট্রবেরি চাষে বিপুল সাফল্য

Hindol Goswami
4th Apr 2017
Add to
Shares
1
Comments
Share This
Add to
Shares
1
Comments
Share

স্ট্রবেরি। ইউরোপের সেই বুনোফল এ রাজ্যেও ফলছে দারুণ। ইতিমধ্যে রাজ্যের নানা জায়গায় অল্পবিস্তর স্ট্রবেরির চাষ হচ্ছে। এবার সেই তালিকায় নবতম সংযোজন পশ্চিম মেদিনীপুরের পিংলা। চলতি বছরেই প্রায় ৬৫ ক্যুইন্টাল স্ট্রবেরি ফলিয়ে নজর কেড়েছেন পিংলার সুব্রত মহেশ। তবে, চাষের শুরুর পথটা অতটা মসৃণ ছিল না। বিভিন্ন প্রান্তে ঘোরাঘুরির পরই এই চাষের পদ্ধতি সম্পর্কে দিশা মেলে।

image


জেলার একমাত্র চাষি হিসেবে সুব্রত মহেশ গত চার বছর ধরে স্ট্রবেরির চাষ করছেন। নিয়ম মেনে চাষ করায় প্রথম বছরেই লাভের মুখও দেখেন। তবে, লাভের থেকেও বড় প্রাপ্তির জন্য এই চাষ মনে ধরেছে সুব্রতর। একবার চাষ শুরুর পর আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি। ধীরে ধীরে বেড়েছে চাষের পরিমাণ।‘৪ বছর আগে চাষ করা শুরু করলেও তারও দু বছর আগে থেকে নানা জায়গায় প্রশিক্ষণ নিই। কোথায় না গিয়েছি স্ট্রবেরির চাষ শিখতে। ৫ কাঠা থেকে পরের বছর দশ কাঠা, এবার এক্কেবারে দেড় বিঘে জমিতে স্ট্রবেরি ফলিয়েছি’, অভিজ্ঞতার কথা বলছিলেন চাষি সুব্রত মহেশ।

বিশেষত শীতের মরশুমেই এই বিশেষ প্রকার ফলের চাষ হয়। একাধিক উপকারিতা রয়েছে এই ফলের। তাই চাহিদাও যথেষ্ট। স্ট্রবেরি খাওয়া ভালো। খেতেও ভালো। লাল টুকটুকে এই রসালো ফলের প্রেমে পড়েননি এমন মানুষ খুব কম। এদেশে আগে বিশেষ একটা চাষ হত না। বিদেশেও বনে বাঁদারে হয়ে থাকত। কিন্তু মানুষ যত টের পেয়েছে এই রসালো ফলের ক্যারিশমা তৈরি হয়েছে দুর্দান্ত বাজার। স্ট্রবেরি কাঁচা খাওয়া যায়। ফ্রুট শেকে দেওয়া যায়। রান্নাও হয়। তাছাড়া স্ট্রবেরির লাল রঙ অন্যান্য নানান কাজে আসে। বিউটি প্রোডাক্ট থেকে শুরু করে চকলেট, আইসক্রিম এমনকি পারফিউম হিসেবেও ব্যবহৃত হয় স্ট্রবেরি। রাজ্যের মধ্যেই বিক্রি হয়ে যায় ফলনের পুরো অংশটা। ‘বিক্রির জন্য খাটতে হয় না বেশি। কলকাতার হোটেলগুলিতেই চলে যায় বেশিরভাগ। অল্পবিস্তর স্থানীয় বাজারে বিক্রি হয়’, বলছিলেন সুব্রত।

নিজে সাফল্যের মুখ দেখার পর, অন্যদেরও স্ট্রবেরি চাষে উৎসাহ যোগাচ্ছেন সুব্রতবাবু। শুধু তাই নয়, নিজের শুরুর লড়াইয়ের কথা মনে করে অন্যদের দিকে সহযোগিতার হাতও বাড়িয়ে দিয়েছেন। জানিয়ে রাখলেন কেউ চাষে নামলে শেখানোর জন্য সবসময় তৈরি তিনি।

চাষের খরচেও লাগাম টানতে তৎপর সুব্রতবাবু নিজে চারাগাছ তৈরি করেন। এজন্য নিজেই আস্ত একটা গ্রিন হাউস বানিয়েছেন। সরকারের তরফেও গত বছর থেকে চাষের খরচের ওপর ভর্তুকি পাচ্ছেন। সবমিলিয়ে রাজ্যের চাষিদের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখাচ্ছে স্ট্রবেরি চাষ।

Add to
Shares
1
Comments
Share This
Add to
Shares
1
Comments
Share
Report an issue
Authors

Related Tags